Basic Approach to the Study of Tourism

Week 3 the study of tourism

Institutional Approach : (প্রাতিষ্ঠানিক পদ্ধতি:)  The institutional approach to study of tourism considers the various perform of tourism activities. This approach require an investigation of the organization, operating methods, problems, costs and economic place of travel agents who act on behalf of the customer, purchasing service from airlines, rental car companies, hotels etc. (পর্যটন অধ্যয়নের জন্য প্রাতিষ্ঠানিক দৃষ্টিভঙ্গি পর্যটন কার্যক্রমের বিভিন্ন সঞ্চালনকে বিবেচনা করে। এই পদ্ধতির জন্য সংস্থার তদন্ত, অপারেটিং পদ্ধতি, সমস্যা, খরচ এবং ট্রাভেল এজেন্টদের অর্থনৈতিক স্থান প্রয়োজন যারা গ্রাহকের পক্ষে কাজ করে, এয়ারলাইন্স থেকে পরিষেবা ক্রয়, ভাড়া গাড়ি কোম্পানি, হোটেল ইত্যাদি।)

Product Approach : (পণ্য পদ্ধতি:)   The product approach involves the study of various tourism products and how they are produced, marketed and consumed. For example, one might study an airlines seat – how it is created, the people who are engaged and buying and selling it, how it is advertised. (পণ্য পদ্ধতির মধ্যে বিভিন্ন পর্যটন পণ্য এবং সেগুলি কীভাবে উত্পাদন, বিপণন এবং সেবন করা হয় তা অধ্যয়ন করা হয়। উদাহরণস্বরূপ, কেউ একটি এয়ারলাইন্সের আসন অধ্যয়ন করতে পারে – এটি কীভাবে তৈরি হয়, যারা নিযুক্ত এবং এটি কেনা -বেচা করছে, কীভাবে বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়।)

Historical Approach :   The historical approach is not used. It involves and analysis of tourism activities and institution from an evolutionary angle. (পদ্ধতি ব্যবহার করা হয় না। এটি একটি বিবর্তনীয় কোণ থেকে পর্যটন ক্রিয়াকলাপ এবং প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত এবং বিশ্লেষণ করে।)

Managerial Approach :    The managerial approach is firm-oriented, focusing on the management activities necessary to operate a  tourist enterprise, such as planning research, advertising, control and the like.  (ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি দৃ -়মুখী, পর্যটন উদ্যোগ পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করা, যেমন পরিকল্পনা গবেষণা, বিজ্ঞাপন, নিয়ন্ত্রণ এবং এর মত।)

Economical Approach :   The economical approach is most important to the both domestic and international economics, tourist has been examined closely by economists, who focus on supply, demand, balance of payments, foreign exchange, employment, expenditure and other econimic factors.  (অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক উভয় অর্থনীতির জন্য অর্থনৈতিক পদ্ধতি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, অর্থনীতিবিদরা পর্যটককে ঘনিষ্ঠভাবে পরীক্ষা করেছেন, যারা সরবরাহ, চাহিদা, অর্থের ভারসাম্য, বৈদেশিক মুদ্রা, কর্মসংস্থান, ব্যয় এবং অন্যান্য অর্থনৈতিক বিষয়গুলিতে মনোনিবেশ করেন।)

Sociological Approach :   Tourism teds to be a social activity. It is attracted the tourist behavior of individuals and group of people and the impact of tourism on society. This approach examines social classes, habits and customs of the both hosts and guests. 

Geographical Approach :    Geography is  a wide-ranging discipline , such as location, environment, climate, landscape and economic aspects. This approach is the sheds of a tourism activity in the words spreading of tourism development physical planning, economical, social and cultural. (ভূগোল হল একটি বিস্তৃত শৃঙ্খলা, যেমন অবস্থান, পরিবেশ, জলবায়ু, প্রাকৃতিক দৃশ্য এবং অর্থনৈতিক দিক। এই পদ্ধতি হল পর্যটন উন্নয়ন ভৌতিক পরিকল্পনা, অর্থনৈতিক, সামাজিক এবং সাংস্কৃতিক শব্দ ছড়িয়ে একটি পর্যটন কার্যকলাপের শেড।)

Interdisciplinary Approach :    Tourism embraces virtually all parts of our society. Its create a variety of laws, regulations and legal environment in the tourism industry. For example, going to other country, government declaration is must need passport and visa if anybody wants to cross the boarders.   (পর্যটন আমাদের সমাজের প্রায় সব অংশকেই গ্রহণ করে। এটি পর্যটন শিল্পে বিভিন্ন আইন, প্রবিধান এবং আইনি পরিবেশ তৈরি করে। উদাহরণস্বরূপ, অন্য দেশে যাওয়া, সরকারী ঘোষণাপত্র অবশ্যই পাসপোর্ট এবং ভিসা প্রয়োজন যদি কেউ বোর্ডার অতিক্রম করতে চায়।)

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.