পর্যটকহীন কুয়াকাটা এখন লাল কাঁকড়ার রাজ্য

ট্রাভেল বাংলাদেশ স্পেশাল : মাটির স্বাস্থ্য রক্ষার্থে              লাল কাঁকড়ার স্বাধীন বিচরণ নিশ্চিত করা দরকার

কুয়াকাটা এখন লাল কাঁকড়ার রাজ্য
পর্যটকহীন কুয়াকাটা এখন লাল কাঁকড়ার রাজ্য                                                                                            মরণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সারা দেশে ‘লকডাউন’ পরিস্থিতিতে ফাঁকা হয়ে গেছে দেশের সব পর্যটন কেন্দ্রগুলো। এই অবস্থায় জনশুন্য কক্সবাজারে সৈকতের কাছে যেমন ডলফিনের অবাধ বিচরণ দেখা যাচ্ছে, তেমনই কুয়াকাটা ও গঙ্গামতি পয়েন্টে চলছে লাল কাঁকড়ার চোখধাঁধানো নয়নাভিরাম মিছিল।কার্যত ১৯ মার্চ থেকে কুয়াকাটায় পর্যটকের আনাগোনা নিষিদ্ধ করেছে জেলা প্রশাসন। নিরুপদ্রব সৈকতে এখন সুনসান নীরবতা। আর এই সুযোগে সৈকত দখলে নিয়েছে লাল কাঁকড়ার দল।। এঁকেবেঁকে পুরো বেলাভূমিতে যেন মনোমুগ্ধকর কাঁকড়ার দল আলপনা আঁকছে। যেন দীর্ঘদিন পর নিজেদের হারিয়ে যাওয়া রাজ্য পুনরুদ্ধার করেছে তারা।

 কুয়াকাটা এখন লাল কাঁকড়ার রাজ্য

এই সৈকতে ভাটার সময় বেলাভূমির আয়তন বাড়ে। তখন লাল কাঁকড়া বালুর নিচের গর্ত থেকে বের হয়ে আসে। অথচ কয়েকদিন আগের দৃশ্যও এমন ছিল না। পর্যটকের পদচারণা আর মোটরসাইকেলের চলাচলে কাঁকড়ারা লুকিয়ে থাকত গর্তে। ভাটার সময় বেলাভূমির আয়তন বাড়লে লাল কাঁকড়া বালুর নিচের গর্ত থেকে বের হয়ে আসে। যেন আলপনায় ঢেকে দেয় সৈকতের বেলাভূমি।

কিন্তু দর্শনার্থী যখন ৩০-৪০ মিটার কাছে চলে আসে, তখন লাল কাঁকড়ার দল জীবন বাঁচাতে ভোঁ দৌড় দেয়। এখন পর্যটকদের উৎপাত না  থাকায় প্রকৃতির সঙ্গে প্রাণ ফিরে পেয়েছে লাল কাঁকড়াগুলোও। স্থানীয়দের মতে, এখন একদমই পর্যটক না থাকায় আগের মতো ১৮ কিলোমিটার সৈকতে লাল কাঁকড়ার দেখা মিলছে বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে। এখানে এখন ঝাঁকে ঝাঁকে লাল কাঁকড়া আসে সকাল ও বিকেলে।

পরিবেশবিদদের মতে, মাটির স্বাস্থ্য রক্ষা করে এই লাল কাঁকড়া। এদের প্রতিবেশ যাতে কোনোভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেদিকে সবার সবসময় নজর রাখা উচিত।

বাংলাদেশ ট্রাভেল ইউটিউব চ্যানেল

ট্রাভেল বাংলাদেশ স্পেশাল: পর্যটক বাড়ার সাথে সাথে ভ্রমণকেন্দ্রিক এই চ্যানেলগুলোও হয়েছে জনপ্রিয়

ঘুরতে বেরুলে যে অল্প কিছু জিনিস একজন পর্যটকের কাছে থাকে তার মাঝে ক্যামেরা অন্যতম। যুগ যত আধুনিক হয়েছে ঘোরাঘুরি নির্ভর ভিডিও প্রচারের প্রবণতা অনেক বেশি বেড়েছে। ইউটিউবের মত প্লাটফর্মে অনেকেই নিজের ভ্রমণের স্মৃতি যেমন ধরে রাখছেন, তেমনই অন্যদেরও অজানাকে দেখার আগ্রহ জাগিয়ে চলেছেন। বৈশ্বিক এই মঞ্চে পিছিয়ে নেই বাংলাদেশের ভ্রমণপিয়াসীরাও। শুধু দেশের ভেতরেই নয়, দেশের বাইরেও এদেশের বেশ কিছু ইউটিউবারের পায়ের ছাপ পড়েছে। দেশের ইউটিউব অঙ্গনে ভ্রমণপিয়াসী মানুষের মাঝে অল্প কজনের পরচিতি দেখে নিজ এক নজরে।

 

ট্রাভেল উইথ শিশির দেব

 

ট্রাভেল নিয়ে যেসকল ইউটিউব চ্যানেল খুব বেশি জনপ্রিয় তার মাঝে একেবারেই শীর্ষ স্থানে থাকবে ট্রাভেল উইথ শিশির দেব। ২০১৫ থেকে নিয়মিত ঘোরার অভ্যাস থাকলে ঘোরা নিয়ে ভিডিও নির্মাণ শুরু হয় বেশ অনেকটা পরে। শিশির দেব কেবল দেশের ভেতরের সৌন্দর্যকেই সাধারণের মাঝে ছড়িয়ে দিতে আগ্রহী। এখন পর্যন্ত এই চ্যানেলে আপলোড হওয়া ভিডিও ৬৪টি। প্রায় ৩ লাখ ৪৮ হাজারের চ্যানেলের মোট ভিউ ২ কোটি ১৫ লাখের বেশি। জিমেইল আইডি : shishirdeb@yahoo.com ইউটিউব চ্যানেল : https://youtube.com/user/Shishirorko

 

ওয়েন ভ্লগস

 

১ লাখ ১৭ হাজারের অধিক সাবস্ক্রাইবার এবং ২০৮টি ভিডিও নিয়ে দেশের ট্রাভেল বিষয়ক ইউটিউব চ্যানেলের বেশ উপরদিকে আছেন ওয়াসেক ইমাম নিলয়। নিজের নামের আদ্যাক্ষর দিয়ে যিনি চ্যানেলের নাম রেখেছেন WEN Vlogs. বাইক রাইড এবং প্রকৃতি নিয়ে আগ্রহী এই তরুণের ঝুলিতে আছে ইউটিউব সিলভার প্লে বাটন লাভের অভিজ্ঞতাও। ২০১৭ সালের ২৭ ডিসেম্বর যাত্রা শুরু করে এই চ্যানেলটি। নিয়মিত ভিডিও আপলোড এবং দুর্দান্ত মেকিং-এর কল্যাণে সহজেই নিজের স্থানকে বেশ উপরে নিয়ে গিয়েছে ওয়াসেক ইমাম নিলয়। এখন পর্যন্ত প্রায় ৮ কোটি বার তার ভিডিওগুলো দেখেছে ইউটিউব ব্যবহারকারীরা। তার ইমেইল আইডি : waswqvlogs@gmail.com ইউটিউব চ্যানেল : https://www.youtube.com/c/WENVlogs

 

আরাফ ইন্তিসার দীপ্ত

 

কেবল ২০১৯ সালে যাত্রা শুরু হয় এই চ্যানেলের। কিন্তু এরইমাঝে সাবস্ক্রাইব সংখ্যা ১ লক্ষ ৩৩ হাজারের ঘরে। মিলেছে সিলভার প্লে বাটন। দেশ ও দেশের বাইরে রীতিমতো অভিযান করেছেন আরাফ ইন্তিসার দীপ্ত। ভিডিও সংখ্যা অনেক বেশি না হলেও চমৎকার মেকিং এবং লোকেশন বাছাই দিয়েই অজস্র মানুষের মন জয় করে ফেলেছেন তিনি। তার চ্যানেলের মূল উদ্দেশ্য নিজের শখের জায়গাগুলো স্মৃতি আকারে সংরক্ষণ করা। কিন্তু তা সত্ত্বেও নিজের শখকে অনেক বেশি ছড়িয়ে দিতে সক্ষম হয়েছিলেন। তার জিমেইল আইডি : arafintisarvlogs@gmail.com ইউটিউব চ্যানেল : https://youtube.com/c/ArafIntisar

 

সায়েম’স ওয়ার্ল্ড

 

সারাবিশ্বে মেডিকেল ট্যুরিজম বেশ জনপ্রিয় এক বিষয়। এক্ষেত্রে মূলত চিকিৎসা এবং ভ্রমণ দুয়ের সমন্বয় ঘটানো হয়। বাংলাদেশের সাপেক্ষে অবশ্য এটি বেশ দুর্লভ। তবে তেমনই মেডিকেল ট্যুরিজম সংক্রান্ত কাজ করছে সায়েম’স ওয়ার্ল্ড। পেশায় সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার আবু সায়েমের মূলত স্বপ্নের প্লাটফর্ম এই ইউটিউব। নিজের অভিজ্ঞতা সবার কাছে ছড়িয়ে দেয়ার নেশায় ২০১৭ সালে যাত্রা শুরু করে তার ইউটিউব চ্যানেল। বর্তমানে ২ লাখ ১৮ হাজার সাবস্ক্রাইবার আছে এই চ্যানেলে। সবমিলিয়ে ১ কোটির ওপর ভিউ আছে সায়েম’স ওয়ার্ল্ড চ্যানেলে। জিমেইল আইডি : abusayem@gmail.com ইউটিউব চ্যানেল : https://youtube.com/c/SayemsWorld

 

বিডি ট্রাভেলার্স

 

দেশের অন্যতম বৃহৎ ট্রাভেল ইউটিউব চ্যানেল বিডি ট্রাভেলার্স। চট্টগ্রামের সাংবাদিক দম্পতি জিয়াউল হক এবং মিথিলা হক দুজনের যৌথ প্রয়াস এই ইউটিউব চ্যানেল। দেশ-বিদেশের বিভিন্ন দেশেই ঘুরে বেড়িয়েছেন এই সাংবাদিক দম্পতি। অনেকটা হুট করেই নিজেদের ভ্রমণের ভিডিও ইউটিউবে শেয়ার করা শুরু করেন এই দুজন। যার ফলাফল আসে হাতেনাতে। ২০১৭ সালে যাত্রা শুরু করার পর থেকে এখন পর্যন্ত তাদের ভিডিও দেখা হয়েছে ২ কোটি ৭১ লাখের বেশিবার। এছাড়া তাদের সাবস্ক্রাইব সংখ্যা ৩ লাখ ২৮ হাজারের বেশি। ভিডিও নিয়ে অভিজ্ঞতা না থাকার কথা স্বীকার করলেও নিজের কর্মগুণেই বেশ দারুণভাবে নিজেদের ইউটিউব চ্যানেল দাঁড় করাতে পেরেছেন এই দম্পতি। তাদের ওয়েবসাইট : www.bdtravellers.com ইউটিউব চ্যানেল : https://www.youtube.com/c/bdtravellers

 

তিহাম ট্রাভেলার ২০১৪ সালে নিজের ভ্রমণের ভিডিও নিয়ে ইউটিউব যাত্রা শুরু করেন বাংলাদেশি ট্রাভেলার তিহাম। এখন পর্যন্ত এই চ্যানেলে এসেছে ১৭৬টি ভিডিও। ঘোরার বাইরে সংস্কৃতি এবং খাবারের উপরেও বেশ কিছু ভিডিও আছে তিহাম ট্রাভেলার চ্যানেলে। ২ লাখ ২২ হাজার সাবস্ক্রাইবার চ্যানেলের ভিডিও দেখা হয়েছে প্রায় ২ কোটির কাছাকাছি। দেশের তো বটেই দেশের বাইরের প্রকৃতি এবং সংস্কৃতির কাছাকাছি যাবার জন্যে দারুণ উপযোগী এই চ্যানেলটি। ইউটিউব চ্যানেল : https://youtube.com/c/TihamTraveler