১৩ দিনের ব্যবধানে ভরিতে বাড়ল ৪৪৩৩ টাকা, প্রতি ভরির দাম ৭৭ হাজার ২১৬

প্রথম আলো ফাইল ছবি

১৩ দিনের ব্যবধানে দেশের বাজারে সোনার দাম আবার ইতিহাস গড়েছে। ভরিতে ৪ হাজার ৪৩৩ টাকা বাড়িয়ে ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের এক ভরি সোনার দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৭৭ হাজার ২১৬ টাকা। দেশের ইতিহাসে আগে কখনও সোনার দাম এতো উঁচুতে পৌঁছেনি।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি আজ বুধবার রাত সোয়া নয়টায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সোনার দাম বৃদ্ধির বিষয়টি জানায়। এতে বলা হয়, করোনাভাইরাসের সৃষ্ট অর্থনৈতিক সংকট ও চীন-যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যযুদ্ধের কারণে ইউএস ডলার দুর্বল, তেলের দর পতন ও নানাবিধ অর্থনৈতিক সমীকরণের কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার মূল্যে ইতিহাসের সর্বোচ্চ অবস্থানে পৌঁছেছে। সেই ধারাবাহিকতা দেশীয় বুলিয়ন মার্কেটে সোনার দাম বেড়েছে।

জুয়েলার্স সমিতির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বৃহস্পতিবার সারা দেশে সোনার নতুন দর কার্যকর হবে। তাতে ২২ ক্যারেটের এক ভরি সোনার অলংকার কিনতে লাগবে ৭৭ হাজার ২১৬ টাকা। এ ছাড়া ২১ ক্যারেট ৭৪ হাজার ৬৭ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৬৫ হাজার ৩১৯ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার ভরি বিক্রি হবে ৫৪ হাজার ৯৯৬ টাকায়।

অবশ্য বুধবার পর্যন্ত প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট সোনা ৭২ হাজার ৭৮৩ টাকা, ২১ ক্যারেট ৬৯ হাজার ৬৩৪ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৬০ হাজার ৮৮৬ টাকায় এবং সনাতন পদ্ধতির সোনা বিক্রি হয়েছে ৫০ হাজার ৫৬৩ টাকায়। বৃহস্পতিবার থেকে ২২, ২১, ১৮ ক্যারেট ও সনাতন পদ্ধতির সোনার ভরিতে ৪ হাজার ৪৩৩ টাকা বাড়ছে।

গত দুই মাস ধরেই আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দর উধ্বমুখী। সেই কারণে দেশের বাজারেও দফায় দফায় দাম বাড়াচ্ছেন ব্যবসায়ী। গত ২৩ জুন সোনার দাম ভরিতে ৫ হাজার ৮২৫ টাকা বাড়ানো হয়েছিল। সর্বশেষ গত ২৪ জুলাই ভরিতে ২ হাজার ৯১৬ টাকা বৃদ্ধি করে জুয়েলার্স সমিতি।

বিশ্ববাজারে আজ বুধবার প্রতি আউন্স (৩১.১০৩৪৭৬৮ গ্রাম) সোনার দাম ২ হাজার ডলার ছাড়িয়ে যায়। এর আগে সোনার দাম এতো উঁচুতে কখনই উঠেনি। রাত ১১টায় এই প্রতিবেদন লেখার সময় বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স সোনার দর ছিল ২ হাজার ২৯ ডলার।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.