মিসরে মিলল ৩ হাজার বছরেরও বেশি পুরনো কফিন

মিসরে মিলল ৩ হাজার বছরেরও বেশি পুরনো কফিন

মিসরে প্রত্নতাত্ত্বিকরা একটি সমাধিক্ষেত্রসহ প্রাচীন অনেক সম্পদের খোঁজ পেয়েছেন। কায়রোর দক্ষিণে সাকারা নেক্রোপলিসে মূল্যবান প্রাচীন নিদর্শনগুলোর আবিষ্কার করা হয়েছে।

এসব নিদর্শনের মধ্যে তিন হাজার বছরেরও বেশি পুরনো অর্ধশতাধিক কফিন রয়েছে। খবর দ্যা গার্ডিয়ানের।

মিসরের পর্যটন ও প্রত্নতাত্ত্বিক মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মিসরের খ্যাতনামা প্রত্নতাত্ত্বিক জাহি হাওয়াসের নেতৃত্বে প্রত্নতাত্ত্বিকদের একটি দল ওই প্রাচীন সম্পদ আবিষ্কার করেছে।

মিসরের সরকার এ কাজকে ‘বিশাল আবিষ্কার’ বলে ঘোষণা দিয়েছে।  রোববার দেশটির প্রখ্যাত প্রত্নতত্ত্ববিদ জাহি হাওয়াস এ আবিষ্কারকে মিসরের ইতিহাসের ‘নতুন অধ্যায়’ বলে উল্লেখ করেছেন।

কাঠের কফিনগুলো খ্রিস্টপূর্ব ১৬০০ থেকে ১৭০০ সালের হতে পারে। কফিনগুলো ৫২টি সমাধির ১০ থেকে ১২ মিটার (৪০ ফুট) গভীরে পাওয়া গেছে।

জাহি হাওয়াস বলেন, রাজা তেতির স্ত্রী নেয়ার্তের সমাধিসহ একটি মন্দিরের পাশাপাশি ইটের তৈরি তিনটি গুদামও পাওয়া গেছে এলাকাটিতে। এ ছাড়া প্রচুর যুদ্ধাস্ত্র, প্রায় পাঁচ মিটার লম্বা একটি প্যাপিরাস, মাস্ক, কাঠের নৌকা, প্রাচীন মিসরীয়দের খেলার যন্ত্রের সন্ধানও পাওয়া গেছে।

রোববার সাংবাদিকদের জন্য ওই প্রাচীন নিদর্শনগুলো প্রদর্শনের ব্যবস্থা করে দেয় মিসর সরকার। যদিও ওই প্রত্নতাত্ত্বিক স্থানটির খননকাজ এখনও চলছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.