মানুষের ব্যবহৃত মাস্ক গ্লাভস সমুদ্রে ভয়ানক দূষণ ছড়াবে

বারবার সতর্ক করা সত্তে¡বও কিছু মানুষ কিছুতেই সতর্ক হয়নি। লকডাউনের জেরে পরিবেশ আগের থেকে অনেকটাই দূষণমুক্ত হয়েছিল। কিন্তু এর মধ্যেই কিছু মানুষের গাফলতি নতুন করে বড় বিপদ ডেকে আনবে। করোনার হাত থেকে বাঁচতে মানুষের ব্যবহার করা মাস্ক, গ্লাভস, পিপিই কিট ভেসে বেড়াচ্ছে সমুদ্রের পানিতে। এর থেকে যেমন করোনা ছড়ানোর সম্ভাবনা বাড়ল, তেমনই এইসব জিনিস আগামী ৪৫০ বছর ধরে সমুদ্রে দূষণ ছড়াবে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।থ্রি লেয়ার মাস্ক পলিপ্রোপিলিন মাস্ক বছরের পর বছর নষ্ট হবে না। প্লাস্টিকের মতোই বছরের পর বছর ধরে এই মাস্ক পরিবেশে দূষণ ছড়াবে। সমুদ্রের পানিকে দূষিত করবে পিপিই কিট বা প্লাস্টিক মেটেরিয়াল দিয়ে তৈরি গøাভস ও পিপিই কিট।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, করোনা থেকে বাঁচতে প্রতি বছর সারা বিশ্বে চিকিত্সকদের আট কোটি গøাভস, ১৬ লাখ মেডিকেল গগলস, নয় কোটি মেডিকেল মাস্ক লাগবে। সাধারণ মানুষও প্রচুর পরিমাণে এন নাইন্টি ফাইভ মাস্ক ব্যবহার করছেন। আর তার অধিকাংশ যেখানে সেখানে ফেলছেন। অনেকেই ব্যবহৃত মাস্ক, গøাভস নির্দিষ্ট জায়গায় ফেলছেন না। নষ্টও করছেন না।প্লাস্টিকের কবল থেকে প্রকৃতিকে বাঁচাতে লড়াই করছে বহু সংগঠন। এমন কী বহু দেশের সরকারও প্লাস্টিকের খারাপ দিক নিয়ে সচেতনতা অভিযান চালাচ্ছে বছরের পর বছর ধরে। তার মধ্যে মানুষ নতুন করে সমুদ্র ও পরিবেশ দূষণ শুরু করেছে।ইতিমধ্যে বহু দেশের সমুদ্রতটে মাস্ক, গ্লাভস, পিপিই কিট পড়ে থাকতে দেখা গিয়েছে। সমুদ্র থেকে তুলে আনা মাছের গলায় জড়িয়ে রয়েছে মানুষের ব্যবহার করা মাস্ক। এমন ছবিও ধরা পড়েছে। যার ফলে একদিকে বাড়ছে নতুন করে সংক্রমণের আশঙ্কা। আরেক দিকে পরিবেশ দূষণের সম্ভাবনাও বেড়েছে কয়েক গুণ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.