মরিশাসের সমুদ্রে ভাসছে হাজার হাজার টন তেল, জরুরি অবস্থা জারি

ভারত মহাসাগরে অবস্থিত দ্বীপরাষ্ট্র মরিশাস উপকূলে একটি দুর্ঘটনা কবলিত জাহাজ থেকে জ্বালানি তেল ছড়িয়ে পড়ায় দেশটিতে পরিবেশগত জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। সাগরে ভেসে থাকা তেল সরাতে এবং পরিবেশ বিপর্যয় ঠেকাতে ইতিমধ্যেই সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ফ্রান্স।

জানা যায়, এমভি ওয়াকাশিও নামে একটি জাপানি জাহাজ গত ২৫ জুলাই মরিশাস উপকূলে প্রবালপ্রাচীরে ধাক্কা খেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরে দ্রুত এর সকল ক্রুকে সরিয়ে নেয়া হয়। কিন্তু এরপর থেকেই জাহাজটি থেকে ক্রমাগত জ্বালানি তেল বের হচ্ছে। দুর্ঘটনার সময় এমভি ওয়াকাশিওতে চার হাজার টন জ্বালানি ছিল।

জাহাজটির মালিক নাগাশিকি শিপিং এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গত কয়েকদিন ধরে ক্রমাগত বৃষ্টি ও খারাপ আবহাওয়ার কারণে জাহাজের স্টারবোর্ড সাইড বাঙ্কার ট্যাঙ্ক ভেঙে প্রচুর জ্বালানি তেল সাগরে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে তেল ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। জাহাজের পাশে অয়েল বুম নামানো হয়েছে।

মরিশাস সাধারণত এর প্রবালপ্রাচীরগুলোর জন্যই বিখ্যাত এবং পর্যটন দেশটির অর্থনীতির অন্যতম প্রধান চালিকাশক্তি। কিন্তু তেল ছড়িয়ে পড়ায় মরিশাসের সামুদ্রিক পরিবেশ বিনষ্ট হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী প্রবিন্দ জুগনাথ গত শুক্রবার রাতে রাষ্ট্রীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, আটকেপড়া জাহাজটি উদ্ধার এবং তেল ছড়িয়ে পড়া ঠেকানোর মতো পর্যাপ্ত জনবল ও দক্ষতা নেই মরিশাসের। এ জন্য ফ্রান্সের সহায়তা চেয়েছেন তিনি। এর পরপরই জুগনাথের আহ্বানে সাড়া দিয়ে দ্রুত সহায়তা পাঠানোর ঘোষণা দেন ফরাসি প্রধানমন্ত্রী এমান্যুয়েল ম্যাক্রোঁ।

এক বিবৃতিতে মরিশাসের ফরাসি দূতাবাস জানিয়েছে, নিকটবর্তী ফরাসি দ্বীপ রিইউনিয়ন থেকে হেলিকপ্টারে করে দূষণ নিয়ন্ত্রক যন্ত্রপাতি মরিশাসে পাঠানো হচ্ছে। জাহাজটি কীভাবে দুর্ঘঠনায় পড়ল তা তদন্ত করছে স্থানীয় পুলিশ। সূত্র: বিবিসি


Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.