জেনে নিন কোন চা শরীরের জন্য উপকারী

যারা কালো চা খান, তারা সাধারণত দু’ধরনের চা কেনেন। পাতা চা, না হলে গুঁড়ো চা। যারা কড়া লিকার খেতে পছন্দ করেন তাদের পছন্দ গুঁড়ো চা। আর যারা চায়ের সুগন্ধ উপভোগ করতে চান তারা পছন্দ করেন পাতা চা। কিন্তু এই দু’ধরনের চায়ের শরীরের উপর প্রভাব কেমন? একটি কি অন্যটির চেয়ে বেশি উপকারী? কী বলছে বিজ্ঞান? খবর আনন্দবাজার পত্রিকা।

এই দু’ধরনের চা পাতা কী ভাবে প্রস্তুত করা হয়, তার উপর এর গুণগত মান অনেকটাই নির্ভর করে। গুঁড়ো চা বা সিটিসি (ক্রাশ, টিয়ার অ্যান্ড কার্ল) চা প্রস্তুত করতে খুব কম সময় লাগে। বাগান থেকে তোলার পরে যন্ত্রের মধ্যে চা পাতা দেওয়া হয়। সেখানে সেগুলি শুকিয়ে গুঁড়ো করা হয়। চা পাতার বেশ কিছু উপাদান এতে থেকে যায় যেগুলি এর কড়া স্বাদের জন্য দায়ী।

অন্যদিকে পাতা চা প্রস্তুত করতে দীর্ঘ সময় লাগে। এই কাজটি যন্ত্রের মাধ্যমে করা যায় না। কর্মীদের এই কাজটি নিজেদেরই করতে হয়। বাগান থেকে পাতা তোলার পরে সেগুলির বেশ কিছু উপাদান পাতন প্রক্রিয়ায় বাদ দেওয়া হয়। এর ফলে তার কড়া ভাব কেটে যায়। এর পরে এগুলো শুকিয়ে নেওয়া হয় এবং প্রয়োজনে কিছুটা সেঁকেও নেওয়া হতে পারে।

পাতা চায়ে ক্যাটেচিন, আইসোফ্লাভন, পলিফেনলের মতো যৌগ থাকে। এর মধ্যে গুঁড়ো চায়ে ক্যাটেচিন, আইসোফ্লাভনের মাত্রা খুব কম। পলিফেনলের পরিমাণ পাতা চায়ের মতোই। বিজ্ঞান কিন্তু বলছে পাতা চা বেশি উপকারী। কেন? দেখে নেওয়া যাক।

১. পাতা চায়ে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের মাত্রা গুঁড়ো চায়ের চেয়ে অনেক বেশি। ফলে এটি শরীরকে বেশি মাত্রায় দূষণ মুক্ত করে।

২. পাতা চা হদ্‌রোগের আশঙ্কা কমায়। গুঁড়ো চায়ের এমন কোনও গুণ নেই।

৩. পাতা চা স্নায়ুকে আরাম দেয়। মন শান্ত করে। গুঁড়ো চা খুব অল্প পরিমাণে হলেও স্নায়ুর উত্তেজনা বাড়িয়ে দেয়।

৪. পাতা চায়ে ট্যানিনের পরিমাণ তুলনায় কম থাকে। তাই ঘুম কমায় না এই চা। গুঁড়ো চা বেশি পরিমাণে খেলে ঘুমের সমস্যা হতে পারে।

৫. গুঁড়ো চা খেলে অ্যাসিডিটির সমস্যা হতে পারে। পাতা চা খেলে তার আশঙ্কা কম।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.