ভ্রমণ করুন চায়না বাঁধ থেকে

চায়না বাঁধ, সিরাজগঞ্জ - ভ্রমণ গাইড

ছবিটি দেখে নিশ্চয়ই চক্ষু ছানাবড়া অবস্থা আপনার? ভাবছেন এমন জায়গা নিশ্চয়ই দেশের বাইরে কোথাও! ছবিটি আমাদের দেশেরই, সিরাজগঞ্জে। জায়গাটার নাম চায়না বাঁধ।
ভাবুন তো, সবুজ ঘাসের উপর বসে আছেন আপনি, আর দুইপাশে নদী। এমন অসাধারণ জায়গায় একটা বিকেল পার করতে চাইলে ঘুরে আসতে পারেন সিরাজগঞ্জের চায়না বাঁধ থেকে। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড জেলা শহর থেকে ২ কিলোমিটার দূরে যমুনা নদীর কূল ঘিরে তৈরি করা হয়েছে এই বাঁধ। বাঁধের মূল ফটক থেকে নদীর ২ কিলোমিটার গভীরে চলে গেছে বাঁধের শেষ প্রান্ত। মূল গেট থেকে পিচ ঢালা রাস্তা সহজেই যেতে পারবেন বাঁধের শেষ প্রান্তে।

চায়না বাঁধে গিয়ে যা দেখবেন

যমুনা নদীর এই বাঁধে প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ বেড়াতে আসে। ধীরে ধীরে এটি পরিণত হচ্ছে পর্যটকদের পছন্দের গন্তব্যে। বাঁধে বসে থাকতে ভালো লাগবে, ভালো লাগবে আশেপাশের পরিবেশ উপভোগ করতে। আর নদীতে নৌকা ভ্রমণের অভিজ্ঞতা তো এক কথায় অসাধারণ! এরপর আপনি চাইলে শহরটা ঘুরে দেখতে পারেন। ছোট শহর। ব্যাটারি চালিত রিকশায় ১ ঘন্টাতেই শেষ করতে পারবেন।

ভ্রমন পিপাসু মানুষ দের কে যদি এই কথা জিজ্ঞাসা করা হয়, তবে তারা এই কথা অহেতু হাসির ছলে উড়িয়ে দিবে । কারন, ভ্রমন পিপাসু মানুষদের কাছে এই কথা মূল্যহীন । তবুও বলি,

 

May be an image of sky

  • চায়না বাঁধ একটি দর্শনীয় স্থান ।
  • চায়না বাঁধ অত্যন্ত মনোরম, যা আপনার মনকে প্রফুল্ল করে তুলবে ।

চায়না বাঁধে ভ্রমন করলে আপনি হতাশ হবেন না । এটি আমরা হরফ করে আপনাদের জানান দিয়ে দিতে পারি ।

চায়না বাঁধ ভ্রমণ গাইড | একটি বাংলাদেশ

যে কোন স্থান হতে বাস যোগে, ট্রেন যোগে ও বিমানের মাধ্যমে রাজশাহী যেতে পারেন। তারপর সিরাজগঞ্জ হতে গাজনার বিলে যাওয়ার উপায় নিচে উল্লেখ করা হলোঃ

সিরাজগঞ্জ জেলা বাস স্ট্যান্ড থেকে বাস, মাইক্রোবাস, সিএনজি, ইজিবাইক/ অটোরিক্সা  যোগে চায়না বাঁধে যাওয়া যায়। গাড়ি থেকে নেমেই রাস্তার পাশে চাটমোহর শাহী মসজিদ দেখা যায়।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.