এক ওয়েব সিরিজেই ১০০ কোটি নিচ্ছেন অক্ষয়

অক্ষয় কুমার

বলিউডে এই মুহূর্তে ব্যস্ততম সুপারস্টার অক্ষয় কুমার। বড় পর্দায় সব রকম ছবিতে নিজেকে বারবার প্রমাণ করেছেন তিনি। এবার ডিজিটাল দুনিয়া মাতাতে আসছেন অক্ষয় কুমার। গত বছর এই বলিউড সুপারস্টার ঘোষণা করেছিলেন যে ‘দ্য এন্ড’–এর মাধ্যমে নেট দুনিয়ায় অভিষেক হতে চলেছে। ২০২০ সালে শুটিং শুরু হওয়ার কথা ছিল এই অ্যাকশন থ্রিলার–জাতীয় সিরিজটির। কিন্তু করোনার কারণে তা সম্ভব হয়নি। জানা গেছে, নেট দুনিয়ায় পা রাখার জন্য আকাশছোঁয়া দর হাঁকিয়েছেন অক্ষয়।

ছেলে আরভের আবদারেই ডিজিটাল দুনিয়ায় আসার কথা ভেবেছিলেন অক্ষয় কুমার। আরভ চেয়েছিল তার বাবা ওটিটি সিরিজ করুক। গত বছর ঘটা করে এক সংবাদ সম্মেলনে অক্ষয় নেট দুনিয়ায় তাঁর অভিষেকের কথা বলেন।

ভক্তের সঙ্গে অক্ষয়

‘দ্য এন্ড’-এর জন্য মোটা অঙ্কের পারিশ্রমিক নিচ্ছেন বলিউডের এই খিলাড়ি। এই প্রজেক্টের জন্য অক্ষয় বাংলাদেশি মুদ্রায় ১০০ কোটি টাকা দাবি করেছেন। আর এই দাবিতে সম্মতি জানিয়েছেন প্রযোজক।

জানা গেছে, ‘দ্য এন্ড’ তিন সিজনে মুক্তি পাবে। প্রতি সিজিনে আটটা করে পর্ব হবে। প্রথমে পরিকল্পনা ছিল, প্রতিবছর একটা করে সিজন মুক্তি পাবে। তবে এতে কোনো পরিবর্তন আনা হয়েছে কি না, তা জানা যায়নি।

অক্ষয় এক মাসে আটটা পর্বের শুটিং শেষ করে প্রজেক্টটি সম্পূর্ণ করবেন। এখানে অক্ষয়ের সঙ্গে দেখা যেতে পারে ‘বিগবস’খ্যাত শাহনাজ গিলকে। সিরিজটি মুক্তি পাবে আমাজন প্রাইমে।

আমাজনের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ‘শুরুতে অক্ষয়ের দাবি শুনে প্রযোজকেরা ইতস্তত করছিলেন। তবে এই মুহূর্তে আমাজন বিশ্বের সবচেয়ে বড় তারকাদের যুক্ত করছে এই প্ল্যাটফর্মে। আর ভারত এই প্ল্যাটফর্মের জন্য একটা বিশাল মার্কেট। এই মুহূর্তে ভারতে অক্ষয়ের চেয়ে বড় সুপারস্টার নেই। তাই অক্ষয়ের পারিশ্রমিক নিয়ে আর দোনোমনা করেননি। রাজি হয়ে গেছেন।’

স্ত্রী টুইঙ্কেল খান্নার সঙ্গে অক্ষয় কুমার

ভারত সরকার অত্যন্ত জনপ্রিয় গেম ‘পাবজি’সহ চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত ১১৮টি মোবাইল অ্যাপের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। এমন পরিস্থিতিতে অক্ষয় ‘ফৌ জি’ নামে এক নতুন গেম আনতে চলেছেন নেট দুনিয়ায়। করোনাকে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ জানিয়ে অক্ষয় লন্ডনে ‘বেল বটম’ ছবির শুটিং শুরু করেছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.