অর্জুন আর মালাইকা দুজনই করোনায় আক্রান্ত

অর্জুন আর মালাইকা

বিশ্বকে নাড়িয়ে দিয়েছে করোনাভাইরাস। কমবেশি সব দেশে, সব সমাজে হানা দিয়েছে। কাবু করেছে ধনী–গরিব নির্বিশেষে। বলিউডকে যেন বেশি করে চিনেছে করোনা। আবারও সেখানে করোনার হানা। এবারের শিকার অর্জুন কাপুর ও তাঁর প্রেমিকা মালাইকা অরোরা।

রোববার দুপুরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে এ খবর নিজেই জানিয়েছেন অর্জুন কাপুর। তবে শরীরে করোনার কোনোরকম উপসর্গ ছিল না এ তারকার। হোম আইসোলেশনে রয়েছেন অর্জুন কাপুর, সে কথাও জানিয়েছেন তিনি।

সন্ধ্যায় মিলল পরের দুঃসংবাদটি। জানা গেল, করোনায় আক্রান্ত অর্জুনের প্রেমিকা মালাইকা অরোরাও। ভারতীয় গণমাধ্যম ই টাইমসকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন মালাইকার বোন অমৃতা অরোরা। তবে এ বিষয়ে আর তেমন বিস্তারিত জানা যায়নি। মালাইকাও টুঁ শব্দটি করেননি। চুপ করে আছেন। অর্থাৎ, দুপুরে মিলল অর্জুনের করোনায় আক্রান্ত হবার খবর, সন্ধ্যায় মালাইকার।

 

এর আগে দুপুরে অর্জুন তাঁর ইনস্টাগ্রামে একটি বিবৃতি দিয়েছেন। লিখেছেন, ‘আমি মনে করি, আপনাদের সবাইকে জানানো আমার দায়িত্ব। আমার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। যদিও আমি সুস্থ আছি। কোনো উপসর্গও নেই। আমি বাড়িতেই আইসোলেশনে রয়েছি। চিকিত্সকদের পরামর্শ মেনে চলছি। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সব কথা মানছি। আপনাদের সমর্থনের জন্য সবাইকে আগাম ধন্যবাদ। আমি কথা দিচ্ছি, নিজের স্বাস্থ্য সম্পর্কে আগামী কয়েক দিনে আবার আপডেট দেব। এটা একটা কঠিন সময়। তবে মানবতার ওপর আমার বিশ্বাস রয়েছে। আমরা এ লড়াইয়ে জয়ী হবই।’

অর্জুনের ইনস্টাগ্রাম পোস্টের মন্তব্য বক্সে পরিণীতি চোপড়া, মুকেশ ছাবরা, হর্ষবর্ধন কাপুর, নিমরাত কৌরসহ বলিউড পরিবারের বহু সদস্যই ‘গেট ওয়েল সুন’ বার্তা দিয়েছেন।

অর্জুন কাপুরকে শেষবার দেখা গেছে ২০১৯ সালে, ‘পানিপথ’ ছবিতে। সম্প্রতি তিনি ঘোষণা করেন, আসন্ন হরর-কমেডি ‘ভূত পুলিশ’-এ দেখা যাবে তাঁকে।

প্রসঙ্গত, বলিউডে এর আগে আরও বেশ কয়েকবার থাবা বসিয়েছে করোনাভাইরাস। আক্রান্ত হয়েছিলেন বলিউডের মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চন। তাঁর ছেলে-পুত্রবধূ ও নাতনিও কোভিড–১৯-এ আক্রান্ত হয়েছিলেন। তবে সবাই এখন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এ তালিকায় আরও আছেন র‌্যাচেল হোয়াইট, প্রযোজক করিম মোরানি, তাঁর মেয়ে শাজা, কণ্ঠশিল্পী কণিকা কাপুরের মতো সুপরিচিত তারকারা।

অন্যদিকে বলিউডের বিশাল বাজারেও থাবা বসিয়েছে করোনা। করোনার সংক্রমণ রুখতে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ ছিল ভারতের প্রেক্ষাগৃহ। মুক্তি পায়নি কোনো ছবি। সিনেমা, টেলিভিশন ধারাবাহিক, ওয়েব সিরিজের শুটিং বন্ধ। ব্যয়বহুল শুটিং সেটগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.